Sunday, January 3, 2016

জিম্বাবুয়ে সিরিজে দলে আসছে নতুন চমক

নতুন পুরনো মিলিয়ে মোট ২৭ জনের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছিল বিসিবি।যারা রোববার থেকে ক্যাম্পও শুরু করেছে। ক্যাম্পের প্রথম দিনেই জানিয়ে দেয়া হলো জিম্বাবুয়ের সিরিজের জন্য ১৪ সদস্যের দল দিতেও দেরি করছে না বিসিবি। রোববারই দিয়ে দেয়া হবে ১৪ সদস্যের দল।যে দলে থাকছে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন। দেখা যাবে নতুন মুখও। এমনই জানিয়েছেন বিসিবি নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

তাই অনেকেই ধরে নিচ্ছেন এই ১৪ সদস্যের দলে দেখা যাবে বিপিএলে বল হাতে আলোছড়ানো বাঁহাতি তরুণ পেসার আবু হায়দার রনিকে। তবে রনির দলে থাকা নিয়ে কিছু বলেননি মিনহাজুল আবেদিন।দলে পরবির্তন থাকছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘শেষ জিম্বাবুয়ে সিরিজে যে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডটা ছিল এর মাঝে একটু পরিবর্তন তো অবশ্যই আছে। কিছু নতুন খেলোয়াড়ও দেখা যাবে। তো সেই হিসাবে আমি মনে করি আমরা চেষ্টা করছি এশিয়া কাপ এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে একটা সেরা সম্ভাব্য দল দাঁড় করাতে।’ দল দিয়ে দিলে বাকি ক্রিকেটাররা বিসিএল খেলতে চলে যাবে।আর প্রধান কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহে ফিরলে ১৪ সদস্যের দল নিয়ে কাজ শুরু করবেন।

নান্নু বলেন, ‘পরিকল্পনা হলো আজকেইআমরা ১৪ জনের একটা স্কোয়াড দিয়ে দিচ্ছি। সভাপতি অনুমোদন দিলে পরবর্তী কোচিং সেশন হাতুরুসিংহে এসে শুরু করবে। এর মধ্যে যারা বাদ যাবে তারা বিসিএল খেলার জন্য ব্যস্ত থাকবে।’প্রথম দিনেই ১৪ সদস্যের দল ঘোষণা করা হলে কেন ২৭ জনের প্রাথমিক দল নিয়ে কাজ শুরু করা হলো? এমন প্রশ্নে নান্নু বলেন, ‘আমরা ২৭ জনের স্কোয়াড দিয়েছিলাম কারণ সামনে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে লম্বা একটা সময় রয়েছে, এশিয়া কাপ আছে, বিশ্বকাপ আছে। তাই ২৭ জনের একটা পরিকল্পনা মাথায় রেখেছি।’তবে জিম্বাবুয়ে বা এশিয়া কাপ নয় বিসিবির সর্বোচ্চ গুরুত্বে রয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, ‘পারফরমেন্স বিবেচনায় আমরা দল করেছি এবং সেরা খেলোয়াড়দেরই নেয়া হয়েছে। সবচেয়ে আগে বিশ্বকাপ। এর আগে ওয়ানডে বিশ্বকাপে ভালো খেলেছি। এটা মাথায় রাখি যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটাও আমরা ভালো করতে পারবো।’টি-টোয়েন্টির এই সংস্করণে যখন ‘স্টেপ বাই স্টেপ’ আগাতে চান বলে জানান নান্নু।

এশিয়া কাপ এরপরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এই সব হিসাবমাথায় রেখেই কিছু খেলোয়াড়কে দেখবেন বলে জানান তিনি। এই সিরিজ দিয়েই স্কোয়াডটাই দাঁড়া করাতে পাড়বেন বলে বিশ্বাস করেন নির্বাচক।