Friday, January 1, 2016

লাভ হবে, তাই সাকিবকে রেখে দিলো কলকাতা

২০১১ সাল থেকে টানা কলকাতা নাইট রাইডার্সে খেলেছেন সাকিব আল হাসান। ষষ্টবারের মতো আইপিএলে এই দলের হয়েই খেলবেন বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার। তাকে দলে রাখলে লাভ হয় কলকাতার। নাইট রাইডার্সের হয়ে সাকিবের পরিসংখ্যানই বলেসে কথা। এ কারণেই এমন 'সোনার হরিণকে' ছাড়েনি তারা।আইপিএলে সাধারণত খেলোয়াড়দের সঙ্গে তিন বছরের জন্য চুক্তি করে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। ২০১১ সালে সাকিবের সাথেও তা-ই করেছিলো তারা। চুক্তির পুরো মেয়াদ সেখানেই খেলেন সাকিব। পরে ২০১৪ মৌসুমে তাকে আবার নিলামে ছেড়ে দেয় কলকাতা। সেখান থেকে আবার তারাই তাকে কিনে নেয়।গতকাল নতুন মৌসুমের জন্য পুরোনো খেলোয়াড়দের দলে রাখা না রাখা নিয়ে আইপিএল দলগুলোর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানোর কথা ছিলো। সেই সিদ্ধান্তে কলকাতা জানায়, তারা সাকিবকে রেখে দিবে।সাকিব কলকাতায় খেলার পর থেকে দলটি দুইবার আইপিএল শিরোপা জিতেছে। একবার খেলেছে সেমিফাইনাল পর্যন্ত। তিন আসরেই দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন সাকিব। বিশেষ করেশিরোপা জেতার দুইবারেই দলের সেরা অলরাউন্ডার ছিলেন তিনি।গত পাঁচ মৌসুমে কলকাতার হয়ে খেলা ৩২ ম্যাচে ২০-এর উপরে গড়ে রান করেছেন সাকিব। উইকেট নিয়েছেন ৩৮টি। তার এই পারফর্ম নানাভাবে সহায়তা করেছে দলকে। কলকাতায় খেলা সেরা অলরাউন্ডার সাকিবই। তার অবদানের কথা মাথায় রেখে তাকে নিলামে ছাড়ার ভুলটা করেনি কলকাতা। সাকিবও নিশ্চয় চাইবেন, আগামী মৌসুমে আরো একবার কলকাতাকে আরো উঁচুতে তুলে ধরতে।