Saturday, December 26, 2015

বেতন বাড়ছে মাশরাফি-সাকিবদের

২০১৫ সালটা ওয়ানডে ক্রিকেটে
বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য এক বড়
প্রাপ্তির বছর। নিজেদের ক্রিকেট
ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ
ক্রিকেটের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছে
বাংলাদেশ। এ বছর ঘরের মাঠে
পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ, ভারত,
দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের
সাথে জিম্বাবুয়ে হোয়াইটওয়াশ করার মধ্য
দিয়ে বছর শেষ করছে মাশরাফিরারা।
ক্রিকেটারদের এমন পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট
বাংলাদেশ সরকার এবং ক্রিকেট বোর্ড।
কিছুদিন আগে বাংলাদেশের বেশ
কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটার বাংলাদেশ
ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে বেতন
বাড়ানোর আবেদন করেছিলেন। অবশেষে
তাদের ডাকে সাড়া মিলেছে। নতুন
চুক্তিতে বাংলাদেশ জাতীয় দলের
ক্রিকেটারদের বেতন বাড়ানো হবে। সভা
শেষে বুধবার এমনই জানিয়েছেন ক্রিকেট
অপরারেশন্স কমিটির চেয়ার নাইমুর রহমান দুর্জয়।

চলতি ডিসেম্বরেই শেষ হচ্ছে
ক্রিকেটারদের চুক্তির মেয়াদ। নতুন বছরের
শুরুতে নবায়ন করা হবে জাতীয় দলের
ক্রিকেটারদের চুক্তি। আর এই চুক্তিতে
ক্রিকেটারদের বেতন বাড়ানোর জন্য
ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগ থেকে
প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে ক্রিকেটারদের
বেতন কী পরিমাণ বাড়ছে সে বিষয়ে কিছু
জানাননি নাইমুর রহমান দুর্জয়।
যদিও বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, ক্রিকেট
অপারশেন্স বিভাগ থেকে বোর্ডের কাছে
ক্রিকেটারদের বেতন ২৫ শতাংশ বৃদ্ধির
সুপারিশ করা হয়েছে। নির্বাচকরা চুক্তি
নবায়নের জন্য ১৫ জনের তালিকা
দিয়েছেন। ক্রিকেটারদের এই তালিকা ও
বেতন বৃদ্ধির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে
বিসিবির আগামী বোর্ড সভায়।
উল্লেখ্য, বিসিবির আগের বেতন কাঠামো
অনুযায়ী এ-প্লাস শ্রেণির ক্রিকেটারের
মাসিক বেতন ছিল ২ লাখ টাকা। এছাড়া
‘এ’ শ্রেণিতে ১ লাখ ৭০ হাজার, ‘বি’
শ্রেণিতে ১ লাখ ২০ হাজার, ‘সি’
শ্রেণিতে ৯০ হাজার ও ‘ডি’ শ্রেণিতে ৬০
হাজার টাকা ছিল মাসিক বেতন ছিল।
অধিনায়ক বাড়তি ২০ হাজার ও সহ-
অধিনায়ক ১০ হাজার টাকা দায়িত্ব ভাতা
পেতেন।