Friday, December 25, 2015

টাইমস অব ইন্ডিয়ার বর্ষসেরা ক্রিয়াবিদের তালিকায় রুবেল-মুস্তাফিজ

২০১৫ সালটা মুস্তাফিজুর রহমানের কাছে
সোনার অক্ষরে লিখে রাখার মতোই। বাঁ
হাতি পেসারের কত অর্জন এই একটি বছরে!
চোটের কারণে বেশির ভাগ সময় দলের
বাইরে থাকলেও রুবেল হোসেনের পাওয়াও
নেহাত কম নয়। এ বছর ওয়ানডেতে সেরা দশ বোলিং স্পেলের একটি তালিকা করেছে
ভারতের সবচেয়ে প্রচারিত পত্রিকা
‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’। সে তালিকায় আছেন
বাংলাদেশের দুই পেসার রুবেল ও
মুস্তাফিজ।

রুবেলকে নেওয়া হয়েছে বিশ্বকাপে
অ্যাডিলেডে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে
বাংলাদেশের সেই ঐতিহাসিক ম্যাচের
কারণে। বাংলাদেশের জয়ে সবচেয়ে বড়
ভূমিকা ছিল রুবেলের দুটো স্পেল। রুবেল
প্রথম আঘাত হেনেছিলেন নিজের দ্বিতীয়
স্পেলে। ২৭তম ওভারের দ্বিতীয় বলে
ফিরিয়েছিলেন সেট ব্যাটসম্যান ইয়ান
বেলকে (৬৩)। চতুর্থ বলে শূন্য রানে আউট
করলেন অধিনায়ক এউইন মরগ্যানকেও। ২
উইকেটে ১২১ থেকে ইংল্যান্ডের হয়ে গেল ৪
উইকেটে ১২১!
চমক বাকি ছিল আরও। ৪৯ ওভারে স্নায়ুক্ষয়ী
মুহূর্তে রুবেল হয়ে উঠলেন দুরন্ত ‘ইগল’।
ভয়ংকর ইয়র্কারে নাস্তানাবুদ করলেন শেষ
দুই ব্যাটসম্যানকে। স্টুয়ার্ট ব্রড ও জেমস
অ্যান্ডারসনকে ফিরিয়ে নিশ্চিত করলেন
দলের বিজয়। অবিশ্বাস্য এক জয়ে
বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো
বাংলাদেশের নিশ্চিত হলো কোয়ার্টার
ফাইনাল।
মুস্তাফিজকে নিয়ে নতুন কী বলার আছে!
ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেকেই
নিলেন ৫০ রানে ৫ উইকেট। তবে সিরিজে
দ্বিতীয় ওয়ানডে ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ওই
ম্যাচ বাংলাদেশের কাছে ছিল সিরিজ
জেতার আর ভারতের কাছে তা বাঁচানোর।
টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামল
ভারত। মুস্তাফিজের করা প্রথম ওভারের
দ্বিতীয় বলেই ফিরলেন রোহিত শর্মা।
প্রথম স্পেলে আর সাফল্য নেই
মুস্তাফিজের। বাঁহাতি পেসার ভয়ংকর
হয়ে উঠলেন দ্বিতীয় স্পেলে। ৩৬ থেকে ৪৪
ওভার—এ সময়ে মুস্তাফিজের ৫ ওভারেই কবর রচিত হলো ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপের। মুস্তাফিজ একে একে তুলে নিলেন সুরেশ রায়না, মহেন্দ্র সিং ধোনি, অক্ষর প্যাটেল, রবীচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র
জাদেজাকে। তাসের ঘরের মতো ধসে পড়ল
ভারতীয় ব্যাটিংয়ের মিডল ও লোয়ার
অর্ডার। ভারত অলআউট ২০০ রান।
বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ২০১ রানের লক্ষ্য
অনায়াসেই টপকে গেল বাংলাদেশ। এক
ম্যাচ বাকি থাকতেই নিশ্চিত হলো
সিরিজ।

ওয়ানডে ক্রিকেট এমনই, একটি বা দুটি
স্পেলই বদলে দিতে পারে ম্যাচের
চেহারা। ম্যাচ বদলে দেওয়া স্পেলে টাইমস
অব ইন্ডিয়ার তালিকায় আছেন টিম
সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট, মিচেল স্টার্ক,
ইমরান তাহির, কাগিসো রাবাদা, মিচেল
ম্যাকক্লেনাহান, মরনে মরকেল ও মিচেল
মার্শ।