Tuesday, October 13, 2015

সিএসএস কি? সিএসএস পরিচিতি

সিএসএস কি (CSS)?
সিএসএস (CSS) হচ্ছে
ক্যাসকেডিং স্টাইল শিটস
(Cascading Style Sheets)
আপনারা নিজের web designing এর দক্ষতা আরেকটু উপরের ধাপে উন্নিত করতে চাইলে সিএসএস (CSS) এর কোন বিকল্প
নেই। আমি চেষ্টা করবো  myitbangla.com এ আপনাদেরকে  সিএসএস এর  সঠিক গাইডলাইন এবং  টিউটোরিয়াল দিতে। সিএসএস ব্যবহার করে  ওয়েব সাইটে একটু বাড়তি মাত্রা যোগ করা যায় মানে ওয়েবসাইটকে সুন্দর করা যায় ওয়েবসাইটের কাঠামোকে দৃষ্টিনন্দন
করা যায়। এইচটিএমল ডকুমেন্টের যেকোন
এলিমেন্টকে স্টাইলিং বা একটা রুপ দিতে সিএসএস ব্যবহার হয়। একটা প্যারাগ্রাফ (<p></p>) বা হেডিং (<h1></h1>)
বা যেকোন এলিমেন্ট
কে ধরুন রং করতে চান, ফন্ট বড় ছোট করতে হবে, অবস্থান এক দিক থেকে অন্যদিকে নিতে হবে, ব্যাকগ্রাউন্ড রং বদলাতে হবে এরুপ শত ধরনের স্টাইল পরিবর্তন সিএসএস দিয়ে করা হয়। বিশেষ করে লেআউট তৈরীর জন্য সিএসএস সবচেয়ে বেশি জরুরি।বর্তমানে সিএসএস ৩ চলে এসেছে (এখনও কাজ চলছে)। এর আগের ভার্সন হল সিএসএস
২.১। তবে সিএসএস ৩ এখন অধিকাংশ
ব্রাউজারে সাপোর্ট করে এবং CSS 3
ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলছে।
আর একটি কথা না বললেই নয় সিএসএস
শেখার আগে অবশ্যই এইচটিএমএল সম্বন্ধে
ভাল জানতে হবে। এইচটিএমএল না জানলে
সিএসএস শিখে কোন লাভ হবে না।

সিএসএস দিয়ে যা করা যাবে :
১ সিএসএস এর মাধ্যমে এইচটিএমএল এ
তৈরীকৃত পেজটি আরও দৃষ্টিনন্দন করা যায়।
২ কিছু সিএসএস কোড পরিবর্তন করে
সম্পুর্নভাবে সাইট এর restyle করা যায়।
আপনার stylesheet (যেখানে আপনি
কোডগুলো লিখবেন) টি সম্পুর্নভাবে
এইচটিএমএল documents হতে পৃথক হবে যখন
আপনি সিএসএস এবং এইচটিএমএল এ দক্ষতা
অর্জন করতে পারবেন।
সিএসএস দুই পদ্বতিতে করা যায় একটা হলো ইন্টারনাল সিএসএস অন্যটি এক্সটার্নাল সিএসএস।
একটা এইচটিএমএল পেজে <head> ট্যাগের
ভিতর <style> ট্যাগ দিয়ে সিএসএস কোড
যোগ করে পেজ স্টাইলিং করা যায়।এটা
হচ্ছে ইন্টারনাল সিএসএস।
আর যদি সিএসএস কোড বেশি হয়ে যায় তখন সিএসএস কোড আলাদা ফাইলে লেখা হয় এবং <head>
ট্যাগের ভিতর <link> ট্যাগ দিয়ে সিএসএস
ফাইলটি ঢুকিয়ে দেয়া হয়।এই পদ্ধতি হচ্ছে
এক্সটার্নাল সিএসএস। আজ এখানেই শেষ করবো  আগামীতে সিএসএস এর পরিপূর্ন টিউটোরিয়াল দেওয়ার চেষ্টা করবো সেই পর্যন্ত সবাই সুস্থ থাকুন myitbangla.com এর সাথেই থাকুন।