Wednesday, August 5, 2015

ফাইভার মার্কেটপ্লেসে কি আপনি নতুন ! জেনে নিন ফাইভার সম্পর্কে এবং এখানে কাজ করার সুবিধা ও অসুবিধা

আপনারা হয়ত অনেকই ফাইভার সম্পর্কে জানেন না। কারন ফাইভার বাংলাদেশে ততটা পরিচিত না। কিন্তু এখন এটা খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা পাচ্ছে।

আজ আমি আপনাদের সাথে আলচনা করব ফাইভার কি এবং ফাইভারে কাজ করার কিছু সুবিধা ও অসুবিধা।  

fiverr work


ফাইভার কি -
ফাইভার হল একটা অনলাইন মার্কেটপ্লেস। এখানে সেলার কোন কাজের গিগ তৈরী করে। এবং ওই গিগ যদি কোন বায়ারের দরকার হয় তাহলে গিগটা সে কিনবে। এভাবে ফাইভারে গিগ তৈরী করে আয় করা যায়। 

গিগ কি -
এইমাত্র গিগ নিয়ে কথা বললাম। কিন্তু আমার মনে হয়ে অনেকই জানেন না গিগ কি। গিগ হল একটা কাজের অফার বা সার্ভিস এর নাম। আপনি যদি একটা গিগ বানান তাহলে এইখানে আপনার  অফার বা সার্ভিস এর কিছু শর্ত দিতে হবে। যেমন: যদি আপনি বলে থাকেন, আমি কাজটি একদিনের ভিতর শেষ করে দিবো তাহলে আপনাকে তা একদিনের ভিতর শেষ করতে হবে। এর জন্য আপনার প্রোফাইলে  ২৪ ঘন্টা বা এক দিনের একটি টাইমার দেখাবে।

কি কি কাজ পাওয়া জায় ফাইভারে -
ফাইভারে মূলত অনলাইনের সব ধরনেরই কাজ পাওয়া জায়। এখানে ক্রুয়েটিভ কাজ বেশি পাওয়া যায়। আপনি যেকোন একটি সেক্ট্রের কাজ শিখেই এখানে কাজ করতে পারবেন। ওয়েব পেজ ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট, গ্রাফিক্স, ফটশপ অথবা এসইও বা অন্যান্য কোন একটা কাজ শিখেই আপনি এখানে গিগ সেল করতে পারবেন।

ফাইভারে ও অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের পার্থক্য -
ফাইভার অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের থেকে একটু আলাদা। অাপওয়ার্ক ও ইলেন্স হল যেখানে ক্লাইন্টরা কাজ পাবলিশ বা পোস্ট করে থাকেন ফ্রিলান্সাররা বিড করে বা খুব ভাল প্রোফাইল হলে ইন্টারভিউ পেয়ে থাকেন। এরপর কাজ পেলে করে থাকেন।
কিন্তু ফাইভারে আগেই আপনাকে গিগ বানিয়ে রাখতে হবে এবং ক্লাইন্টরা সেটা কিনবেন।

ফাইভারের সুবিধা  -
ফাইভারে কিছু সুবিধা আছে যা অন্যান্য মার্কেটপ্লেসে নেই। আমি কিছু সুবিধার কথা বলছি।


  • মার্কেটপ্লেসে যারা নতুন তাদের আমি ফাইবার সাজেশটেড করব। কারন এখানে নতুনরা খুব সহজেই কাজ পেতে পারেন।
  • এখানে ক্রিয়েটিভ কিছু কাজ পাওয়া যায় যা অন্যান্য মার্কেটপ্লেসে পাওয়া যায় না।
  • আপনি যদি Fiverr এ 10 টি গিগ সেল করতে পারেন এবং আপনার ফিডব্যাক ভাল হলে এবং আপনার একাউন্ট যদি 1 মাস একটিভ থাকে তাহলে আলনি লেভল #1 এ যেতে পারবেন। ফাইভার আপনার একাউন্ট এ একটি লেভেল #1 এর ব্যাচ দিবে।
  • ফাইভারে দিনে অল্প সময় দিতে পারলেই চলবে। সারাদিন ফাইভারে থাকা লাগবে না।
  • ভাল কিওয়ারড দিয়া গিগ করতে পারলে দিনে অনেক ডলার আয় করতে লারবেন।


ফাইভারে কাজ করার কিছু অসুবিধা -
  • এখানে কাজ করতে হলে আপনাকে অনেক ধৈর্য ধরে কাজ করতে হবে। কারন প্রথম দিকে আপনার গিগ খুব কম সেল হবে।
  • ফাইভার এত গিগের ভিতর গ্রাহক কিভাবে আপনার গিগ খুজে পাবে। এজন্য আপনাকে একটু আলাদা মার্কেটিং করতে হবে।
এছারা সেইরকম কোন অসুবিধা নেইম। আপনি চাইলে এখানে কাজ করতে পারেন।

আজ আর না। কেমন লাগল এই টিউন জানাতে ভুলবেন না। আরও কিছু জানার থাকলে কমেন্টে জানান।
ফাইভার মার্কেটপ্লেসে কাজ পাচ্ছেন না? জেনে নিন এখানে প্রচুর কাজ পাওয়ার কিছু এক্সক্লুসিভ টিপস